Selfi

– হচ্ছে মনের খোরাক। আর তাই মনের অজান্তেই আমরা একটা সেলফি তোলে ফেলি।

সেলফি তোলার পরে যখন ছবিটা দেখি তখন আর চিন্তে পারিনা নিজেকেই। খুব খারাপ লাগে।

শুধুমাত্র কৌশলগত কিছু ভুলের কারনে সেলফি সুন্দর হচ্ছেনা। কিছু সহজ কৌশল রপ্ত করতে পারলেই তোলতে পারি সুন্দর মন আকৃষ্ট করার মতো একটি Selfi ।

আসুন জেন নেই কৌশলগুলো।

Selfi  তে সবচেয়ে কঠিন কাজ হলো হুবহু নিজের মুখমন্ডল ফুটিয়ে তোলা। এই সমস্যায় সবচেয়ে বেশি পরে র্স্মাটফোন ব্যবহারকারীরা।

সেলফি

ক্যামেরার লেন্সেরে উপর র্নিভর করে সেলফিতে নিজের মুখমন্ডল কিভাবে উপস্থাপিত হবে। যেমন আপনি ক্যামেরার ওয়াইড অ্যাঙ্গেল লেন্স ব্যবহার করছেন।

তাহলে স্বভাবতই আপনার চেহেরাটা কার্টুন কার্টুন মনে হবে।

কারন স্মার্টফোন ক্যামেরার ওয়াইড অ্যাঙ্গেল লেন্স তার বিষয়বস্তুকে আরো বিস্তৃত এবং কিছুটা কার্টুনাকৃতিতে উপস্থাপন করে।

আবার ক্যামেরার র্দীঘ লেন্স আপনার চেহারাকে ফ্লাট এবং সংকুচিত করে প্রদর্শন করবে। যার কারনে প্রফেশনাল ফটোগ্রাফাররা এক্ষেত্রে সুন্দর একটি ট্রিক্স খাটায়।

তারা সাধারণত হেডশটের জন্য ৮৫ মিলিমিটার ক্যামেরার লেন্স ব্যবহার করে থাকেন যা সমসাময়িক র্স্মাটফোন ক্যামেরার লেন্সের থেকে অনেক বড়।

আপনিও একটি ভাল ছবি তোলতে পারবেন আপনার র্স্মাটফোন দিয়ে । এজন্য আপনাকে ফ্রেম, ক্যামেরার লেন্সের ব্যবহার সম্বন্ধে একটু ভাল জানতে হবে।

বাজারে কিছু ব্র্যান্ডেড র্স্মাটফোনে এই সেলফি প্রেমো দেখতে পাওয়া যায়।

সেলফি

সেলফি তোলার সময় একটু পিছনের দিকে পিছিয়ে থাকাই ভাল, খুব বেশি ক্লোজশট না নেওয়াই ‍উচিত। খেয়াল রাখবেন যাতে আপনার মাথা ফ্রেমের মাঝ বরাবর থাকে।

আপনার চিবুক, দাড়ি(যদি থাকে) এবং কপাল ক্যামেরা থেকে সমদূরত্বে রাখুন।

কারন ফ্রেমের মধ্যস্থান ব্যতীত অন্য যেকোনো এক পাশে থাকা বস্তুর ছবি অতিরিক্ত সমতল এবং সঙ্কুচিত হয়ে ওঠে।

তাই সেলফি তোলার সময় সাবজেক্ট সর্বদা ফ্রেমের মাঝ বরাবর রাখবেন।

সেলফির ছবিকে আরোও সুন্দর করার জন্য বিউটিফাই ইফেক্ট ব্যবহার করতে পারেন।

সেলফি

নিজের পেছনে সরাসরি আলোর উৎস না রাখলে সেলফিটি অন্ধকার হওয়ার হাত থেকে রক্ষা পাবে।

সুতরাং চেষ্টা করুন, যাতে আলোর উৎস লেন্সের আড়ালে থাকে।

নিয়মগুলো মেনে তোলা সেলফির ছবিটি দেখুন আপনার মুখশ্রীর বাস্তব প্রতিরূপই আপনি দেখছেন অর্থাৎ অন্যেরা আপনাকে যেমন দেখে আপনার তোলা ছবিতেও আপনি ঠিক একইরকম।

সুতরাং বন্ধুরা নিয়ম মেনে সেলফি তোলুন নিজের আনন্দঘণ মুর্হূতগুলো আটকিয়ে রাখুন ছবির ফ্রেমে।