Dual Camera মোবাইল এর প্রতি আমাদের আগ্রহ দিন দিন বাড়ছে। আমরা ভাবি মোবাইলে ডুয়েল ক্যামেরা!!! এটা দিয়ে অনেক ধরনের অনেক সুন্দর ছবি তোলা সম্ভব। কিন্তু আমরা কি জানি আসলে কি কারনে কেন এই ডুয়েল ক্যামেরা, আর কিভাবেই বা কাজ করে? আসুন জেনে নেই এর টুকিটাকি।

 

মোবাইল এর একটি ক্যামেরা দিয়ে সব ধরনে ছবি তোলা সম্ভব হয়ে উঠেনা, তাই ছবি নিখুত ও আকর্ষণীয় করার জন্যই ডুয়েল ক্যামেরার আগমন। ইদানিং অনেক হাই কনফিগারড মোবাইলেই ডুয়েল ক্যামেরা দেখা যায়। তবে একটা জিনিস মনের রাখতে হবে যে, সব ডুয়েল ক্যামেরার কাজ কিন্তু এক না।

Dual Camera এর মধ্যে একটি হচ্ছে প্রাইমারি ক্যামেরা। এটার কাজ হচ্ছে শুধু ছবি তোলা, এর আলাদা কোন বিশেষত্ব নেই। যত বিশেষত্ব বা কারুকার্য সবকিছুই নিয়ন্ত্রিত হয় সেকেন্ডারি ক্যামেরা দিয়ে। সেকেন্ডারি ক্যামেরা বা সেন্সর তিন রকমের, নিচে এর বিস্তারিত দেয়া হলো।

০১. Telephoto Lens

আমরা অনেকেই ডিএসএলআর ক্যামেরার প্রতি দুর্বল, কারন এটি দিয়ে ছবিতে দেয়া যায় ব্লার ইফেক্ট, বোকেহ ইফেক্ট। আপনি যদি আপনার মোবাইল দিয়ে এই ধরনের ছবি তুলতে চান তাহলে আপনাকে Telephoto Lens সেকেন্ডারি ক্যামেরা সহ মোবাইল কিনতে হবে। কেননা এই ধরনের ইফেক্ট তৈরীতে মূল ভূমিকা রাখে এই Telephoto Lens। এছারাও এই লেন্সটি দ্বারা এক্সট্রা জুম করে আরো ভালো ছবি তোলা যায়।

০২. Monochrome Lens

নাম শুনেই নিশ্চই বুঝতে পারছেন এই লেন্সটির কাজ কি, হ্যা এর কাজ হচ্ছে শুধুমাত্র সাদাকালো ছবি তোলা। আপনি হয়তো ভাবছেন প্রাইমারি ক্যামেরা দিয়েই তো সাদাকালো ছবি তোলা যায় তাহলে আবার আলাদা ক্যামেরার কি দরকার। কারন হচ্ছে ক্যাপচার বাটন চাপার পর প্রাইমারি ক্যামেরাটি বিভিন্ন রঙ নিয়ে ছবি প্রসেসিং এ পাঠায় তাই সাদাকালো ছবির নিখুত দৃশ্যপট ফুটিয়ে তুলতে পারেনা। আর এই কাজটি নিখুত ভাবে করে এই Monochrome Lens। আর যখন প্রাইমারি ক্যামেরা এবং Monochrome Lens সংবলিত সেকেন্ডারি ক্যামেরা দিয়ে কোন ছবি তুলে প্রসেসিং এ পাঠাবে তখন আপনি পাবেন ক্ষুদ্রাতিক্ষুদ্র ডিটেইল সহ একটি HD ছবি।

০৩। Wide Angel Lens

এই ক্যামেরাটির প্রধান বৈশিষ্ট হচ্ছে এটি অন্যান্য ক্যামেরার চাইতে অনেক বেশি জায়গা জুড়ে ছবি তুলতে পারে।

তাই এই উপরোক্ত বিষয়গুলি মাথায় রেখে যে কোন হাই এন্ড ডুয়েল ক্যামেরা ক্রয় করা উচিৎ।

সময় নিয়ে পোষ্টটি পড়ার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ।