উপাত্ত হচ্ছে DATA এর অন্তর্ভুক্ত ক্ষুদ্রতম অংশ। উপাত্ত এক বা একাধিক বর্ণ অথবা চিহ্ন অথবা একটি পূর্ণ শব্দ দিয়েও তৈরি হতে পারে। উপাত্ত বা DATA  একটি ল্যাটিন শব্দের বহুবচন। ল্যাটিন শব্দ Datum  এর বহুবচন হচ্ছে এই DATA। আর এই ডাটা হচ্ছে ইনফরমেশনের উপাদান, পরিশেষে আমরা এটাই বুঝলাম যে, যে কোন ইনফরমেশনের মূল বা ক্ষুদ্রতম অংশই হচ্ছে উপাত্ত বা ডাটা।

DATA

উপাত্ত আবার কয়েক ভাগে বিভক্ত, যেমন –

১) বুলিয়ান বা লজিক্যাল

২) নিউমেরিক

৩) অ-নিউমেরিক

বুলিয়ান বা লজিক্যালঃ যে সকল উপাত্ত দ্বারা মাত্র দুইটি অবস্থা প্রকাশ পায় ঐ সকল উপাত্ত বা ডাটা কে বুলিয়ান বা লজিক্যাল ডাটা বলে। যেমন- true or false, yes or no, 0 অথবা ১ ইত্যাদি।

নিউমেরিকঃ যে সকল ডাটা বা উপাত্ত সংখ্যা অথবা পরিমান প্রকাশ করে সে সকল ডাটা বা উপাত্ত কে নিউমেরিক ডাটা বলে। যেমন- 1, 5, 9, 200 ইত্যাদি।

অ-নিউমেরিকঃ বুলিয়ান এবং নিউমেরিক ব্যাতিত সকল উপাত্তই অ- নিউমেরিক। অর্থাৎ যে সকল ডাটা কোন পরিমান প্রকাশ করেনা সেই সকল ডাটাই অ-নিউমেরিক ডাটা।

ধন্যবাদ সবাইকে।