আমরা আমাদের কাজের প্রয়োজনে হোক অথবা শখের বশেই হোক ল্যাপটপ/নোটবুক ব্যবহার করে থাকি। বর্তমানে টাচস্ক্রিন মোবাইলের যুগে অনেকের মনেই আশা জাগতে পারে টাচস্ক্রিন ল্যাপটপের। তবে সমস্যা হলো যে, চাইলেই তো আর আগের ল্যাপটপ ফেলে দেয়া যায়না। আর সাধ্যেরও একটা ব্যাপার আছে।

তবে এখন আর কোন চিন্তা নেই, আপনি চাইলে আপনার যে কোন ল্যাপটপ বা নোটবুককে বানিয়ে ফেলতে পারেন টাচস্ক্রিন আপনি হয়তো ভাবছে কিভাবে। এ জন্য আপনাকে একটি গ্যাজেট কিনতে হবে যার নাম AirBar। এটি দেখতে নিম্নের ছবির মত।

AirBar

 

AirBar সেট করা খুবই সহজ, কারন এটি প্লাগ এন্ড প্লে এবং এটি Windows/Mac OS compatible। এটি আপনার ল্যাপটপ স্ক্রিন এর নিচে নিম্নের ছবির মত করে সেট করে নিন।

ইউএসবি পোর্টের মাধ্যামে কানেক্ট করুন। ব্যাস আপনার ল্যাপটপ হয়ে গেলো টাচস্ক্রিন ল্যাপ্টপ।

AirBar বিভিন্ন সাইজ এর হয়ে থাকে (১১.৬/১৩.৩/১৪.০/১৫.৬)। আপনি আপনার ল্যাপটপে স্ক্রিন সাইজ অনুযায়ী বেছে নিতে পারেন।

আমরা আমাদের কাজের প্রয়োজনে হোক অথবা শখের বশেই হোক ল্যাপটপ/নোটবুক ব্যবহার করে থাকি বর্তমানে টাচস্ক্রিন মোবাইলের যুগে অনেকের মনেই আশা জাগতে পারে টাচস্ক্রিন ল্যাপটপের তবে সমস্যা হলো যে, চাইলেই তো আর আগের ল্যাপটপ ফেলে দেয়া যায়না আর সাধ্যেরও একটা ব্যাপার আছেতবে এখন আর কোন চিন্তা নেই, আপনি চাইলে আপনার যে কোন ল্যাপটপ বা নোটবুককে বানিয়ে ফেলতে পারেন টাচস্ক্রিন আপনি হয়তো ভাবছে কিভাবে জন্য আপনাকে একটি গ্যাজেট কিনতে হবে যার নাম AirBar এটি দেখতে নিম্নের ছবির মত