আসসালামু আলাইকুম। কেমন আছেন সবাই। techlearnbd এর পক্ষ থেকে আপনাদের সবাইকে আবারও অভিনন্দন জানিয়ে শুরু করছি আমি মোঃ মাছুম পারভেজ। আজ আমি আপনাদের সাথে আরেকটি গুরুত্বপর্ণ পোস্ট নিয়ে আলোচনা করবো।

স্যামসাং থেকে শুরু করে আইফোন পর্যন্ত বিস্ফোরণ থেকে রেহাই পায়নি কেউ। তাই আমাদের অবশ্যই স্মার্টফোন ব্যবহারে সর্বোচ্চ সতর্কতা অবলম্বন করা উচিত। মোবাইল বিশেষজ্ঞরা বেশকিছু কারণ উদ্ভাবন করেছেন। তো চলুন জানা যাক কি কি কারণে স্মার্টফোনে আগুন ধরে বা বিস্ফোরিত হয়।

  • যে সকল কারণে স্মার্টফোনে আগুনের সূত্রপাত হয় তার মধ্যে লিথিয়াম আয়ন দ্বারা তৈরীকৃত ব্যাটারি অনেকাংশে দায়ী। আর বেশিরভাগ স্মার্টফোনের ব্যাটারীই তৈরী হয় লিথিয়াম আয়ন দ্বারা। তবে ভয় পাওয়ার কোন কারণ নেই গবেষকরা একটি লিথিয়াম আয়ন দ্বারা তৈরীকৃত ব্যাটারি উদ্ভাবন করেছেন যাতে অগ্নি নির্বাপণ ব্যবস্থাও থাকবে স্বয়ংক্রিয়ভাবে।
  • আমরা অনেকেই মোবাইল চার্জে লাগিয়ে বালিশের নিচে রেখে ঘুমিয়ে থাকি। বালিশের নিচে রেখে চার্জ দেওয়ার ফলে ফোন অতিরিক্ত গরম হয়ে যেতে পারে। আর অতিরিক্ত গরম হয়ে ফেটেও যেতে পারে। এমনকি আগুনও ধরে যেতে পারে। তাই কখনো মোবাইল বালিশের নিচে রেখে চার্জ দেওয়া ঠিক নয়।
  • নকল চার্জার ও ব্যাটারির কারণেও ঘটতে পারে দুর্ঘটনা। তাই ব্যাটারি ও চার্জার ব্যবহারে আমাদের সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে।
  • চার্জে থাকা অবস্থায় কখনোই স্মার্টফোন ব্যবহার করা উচিত নয়। বিশেষ করে কথা বলার সময় ও গেম খেলার সময়। কারণ অতিরিক্ত কথা বললে বা বেশি সময় ধরে গেম খেললে স্মার্টফোন অনেক সময় গরম হয়ে যায়। আর ঐ অবস্থায় চার্জার লাগানো থাকলে ঘটতে পারে বড় ধরনের দুর্ঘটনা।
  • বাতাস চলাচল করে এরকম উন্মুক্ত জায়গায় মোবাইল ফোন রাখা বা ব্যবহার করা উচিত। বিষয়টির গুরুত্ব আছে বিধায়ই স্যামসাং তাদের ব্যবহার বিধিমালায় সতর্ক বার্তা হিসেবে উল্লেখ করেছে।
  • যেসব ব্যাটারি খুব দ্রুত চার্জ হয় সেগুলো ব্যবহার করাও ঠিক নয়। কেননা দ্রুত চার্জ করতে গেলে ব্যাটারি অনেক গরম হয়ে যায় যার ফলে লিথিয়াম ক্যাথোড থেকে শর্ট সার্কিটের জন্ম দেয়।
  • অনেক সময় ব্যাটারির আকার স্বাভাবিক আকারের চাইতে একটু ফুলে যায়। যখন বুঝতে পারবেন যে আপনার ব্যাটারির আকার কিছুটা ফুলে গিয়েছে তখন সাথে সাথেই ব্যাটারিটি পরিবর্তন করে একটি ভাল মানের ব্যাটারি ব্যবহার করুন।

শেষকথা, আসলে ব্যাটারি বিস্ফোরণে আগুন ধরাটা কোন স্বাভাবিক প্রক্রিয়া নয়। স্মার্টফোনের  যেকোন যান্ত্রিক সমস্যার কারণেও হতে পারে।

তো থাকুন আমাদের সাথে আর উপভোগ করুন টেকনোলজির সর্বশেষ খবর।

ধন্যবাদ।