আগের পর্ব দেখুন:

ধারাবাহিক টিউটোরিয়াল-পর্ব ৩, শিখুন মাইক্রোসফট ওয়ার্ড ২০০৭ (With Screen Shot) – Clipboard ও Editing Toolbar

 

আমি আজ আপনাদের Page Layout Tab/Menu-bar এর tools গুলোর কাজ দেখাব। এই ট্যাব এর  Page size printing, Margin এর জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ এই সেকশনটা ভালভাবে বোঝার চেষ্টা করবেন। আশা করি একবার প্রাকটিস করলেই হয়ে যাবে, এই মেনুর প্রায় সব কাজই মোটামুটি সহজ। তবে Columns তৈরি করাটা একটু ভাল করে দেখবেন কারন এর ভিতর একটু জটিলতা আছে। কলাম তৈরির কাজটা অবশ্য Table অপশন ব্যবহার করে খুব সহজেই করা যায়। তবে এই সিস্টেমটা আমরা যখন Insert মেনুর কাজ করব তখন দেখব। আমরা অবশ্য Page layout এর সবঅপশন দেখবনা, কারন কিছু জিনিস তো আপনাদের জন্য রাখতে হবে। আর আমি তো আপনাদের আগেই বলেছি যে কোন সমস্যায় আমার সাথে যোগাযোগ করতে পারেন পোস্টে কমেন্টের মাধ্যমে। আমি আপনাদের সমাধান দেবার চেষ্টা করব। নিচের ছবিটা লক্ষ করুন। ওয়ার্ড ওপেন করলেই আপনারা এমন দেখতে পাবেন।
ধারাবাহিক টিউটোরিয়াল-পর্ব ৪, শিখুন মাইক্রোসফট ওয়ার্ড ২০০৭ (With Screen Shot) – Page Layout Menu

ছবিতে বিভিন্ন টুলসগুলো লালকালি দিয়ে আলাদা করে দেখানো হয়েছে। এর মধ্যে themes, page setup, page background, paragraph এবং arrange নামক section আছে। আমরা একে একে প্রয়োজনীয় অপশনগুলো দেখব। যে অপশনগুলো নিয়ে আমি আলোচনা করব না সেগুলো কষ্ট করে আপনারা একটু দেখে নিবেন।
ধারাবাহিক টিউটোরিয়াল-পর্ব ৪, শিখুন মাইক্রোসফট ওয়ার্ড ২০০৭ (With Screen Shot) – Page Layout Menu

Themes Option

প্রথমেই আমরা Themes নামক অপশনটা দেখব। এটার আসলে নামই এর কাজ বলে দিচ্ছে। এটাকে আপনারা অনেকটা Template এর সাথে তুলনা করতে পারেন। আমাদের প্যারার কালার, ফন্ট এগুলো আগে থেকে আপনি define করে দিতে পারবেন, তাতে Document বা আপনার তৈরি ফাইল এর ভিতর Styles, fonts সবকিছু মিলে Harmony তৈরি করবে।
ধারাবাহিক টিউটোরিয়াল-পর্ব ৪, শিখুন মাইক্রোসফট ওয়ার্ড ২০০৭ (With Screen Shot) – Page Layout Menu
এবার ওয়ার্ডে যে কোন কিছু লেখেন তারপর ছবিতে দেখানো স্থানে মাউস পয়েন্টার নিয়ে যান আর দেখেন কিভাবে আপনার লেখার style change হয়ে যাচ্ছে। যেটা পছন্দ হয় সেটা সিলেক্ট করুন।
ধন্যবাদ, ভাল থাকবেন।