আসসালামু আলাইকুম। কেমন আছেন সবাই। techlearnbd এর পক্ষ থেকে আপনাদের সবাইকে আবারও অভিনন্দন জানিয়ে শুরু করছি আমি মোঃ মাছুম পারভেজ।

সবসময়ই চেষ্টা করি আপনাদের জন্য ‍যুগোপযোগী পোস্ট দিতে। তাই আজ আপনাদের সামনে গুগলের আরেকটি চমক নিয়ে আলোচনা করবো। যার নাম জি-বোর্ড। যারা প্রথম এই নাম শুনেছেন আশ্চর্য হতে পারেন এই ভেবে যে এতদিন শুনে আসলাম কি-বোর্ড। এখন শুনি জি-বোর্ড। হ্যা নতুনদের অবাক হবারই কথা তবে পুরনোদের কথা বাদ। তো চলুন জানা যাক কি হয় এই জি-বোর্ড দিয়ে।

আমরা অনেকেই টাইপিং করতে বিরক্ত বোধ করি। আর সেটা মোবাইলে হলেতো বিরক্তি বেড়ে যায় আরো বহুগুনে। তবে এখন আর চিন্তা নেই ব্যবহার করুন গুগলের জি-বোর্ড।

জি-বোর্ড হলো এ্যান্ড্রয়েড এর একটি এ্যাপসের নাম। যার সাহায্যে আপনি শুধু মুখে বললেই টাইপ হয়ে যাবে। আপনি জেনে আরো আশ্চর্য হবেন জেনে যে, শুধু ইংরেজীই নয় বাংলা বললেও টাইপ হয়ে যাবে অটোমেটিক। কি দারুন না!

কিভাবে ডাউনলোড করবেনঃ

আপনি খুব সহজেই এটা প্লে-স্টোর থেকে ডাউনলোড করতে পারবেন। শুধুমাত্র প্লে-স্টোরে গিয়ে লিখুন জি-বোর্ড(G Board) তাহলে আপনি পেয়ে যাবে কাঙ্খিত এ্যাপ্সটি। এবার ঝটপট ইনস্টল করে ফেলুন।

টাইপিংয়ে যাদের বিরক্তি তাদের দুশ্চিন্তার দিন শেষ। এসে গেল গুগলের আরেক ম্যাজিক “জি-বোর্ড”। টাইপিংয়ে যাদের বিরক্তি তাদের দুশ্চিন্তার দিন শেষ। এসে গেল গুগলের আরেক ম্যাজিক “জি-বোর্ড”।

ইনস্টল শেষ হলে আপনাকে কিছু সেটিংস ঠিক করতে হবে কাঙ্খিত সুবিধাসমূহ পেতে।

ইনস্টলেশন প্রক্রিয়া শেষ হলে এ্যাপ্সটি চালু বা Open করুন।

টাইপিংয়ে যাদের বিরক্তি তাদের দুশ্চিন্তার দিন শেষ। এসে গেল গুগলের আরেক ম্যাজিক “জি-বোর্ড”।

  • এরপর ENABLE IN SETTINGS-এ প্রেস করুন।

টাইপিংয়ে যাদের বিরক্তি তাদের দুশ্চিন্তার দিন শেষ। এসে গেল গুগলের আরেক ম্যাজিক “জি-বোর্ড”।

  • এরপর Gboard Optionটি এক্টিভ করুন।

টাইপিংয়ে যাদের বিরক্তি তাদের দুশ্চিন্তার দিন শেষ। এসে গেল গুগলের আরেক ম্যাজিক “জি-বোর্ড”।

  • একটি ডায়ালগ বক্স চালু হবে সেখান থেকে OK-তে প্রেস করুন।

টাইপিংয়ে যাদের বিরক্তি তাদের দুশ্চিন্তার দিন শেষ। এসে গেল গুগলের আরেক ম্যাজিক “জি-বোর্ড”।

  • ২য় স্টেপে SELECT INPUT METHOD-এ ক্লিক করুন।

টাইপিংয়ে যাদের বিরক্তি তাদের দুশ্চিন্তার দিন শেষ। এসে গেল গুগলের আরেক ম্যাজিক “জি-বোর্ড”।

  • INPUT METHOD-থেকে Gboard সিলেক্ট করুন।

টাইপিংয়ে যাদের বিরক্তি তাদের দুশ্চিন্তার দিন শেষ। এসে গেল গুগলের আরেক ম্যাজিক “জি-বোর্ড”।

  • সর্বশেষ Done-এ ক্লিক করুন।

টাইপিংয়ে যাদের বিরক্তি তাদের দুশ্চিন্তার দিন শেষ। এসে গেল গুগলের আরেক ম্যাজিক “জি-বোর্ড”।

ব্যাস কাজ শেষ এখন যেকোন ম্যাসেজিং অপশানে যান। কি-বোর্ডের উপরের ডান পাশে একটি রেকর্ডার আইকন দেখতে পাবেন। রেকর্ডার আইকনে ক্লিক করুন। যখন স্ক্রিনে Speak Now দেখতে পাবেন তখন ফোনটি আপনার মুখের কাছে নিয়ে বলুন Hello সাথে সাথে টাইপ হয়ে যাবে।

এবার আসুন কিভাবে বাংলা ভয়েস টাইপিং করবেন।

প্রথমে কিবোর্ডের স্পেসপারে Long Press করুন কিবোর্ডের লে-আউট পরিবর্তনের জন্য এবং সেখানে LANGUAGE SETTINGS নামে একটি অপশান পাবেন তাতে প্রেস করুন।

টাইপিংয়ে যাদের বিরক্তি তাদের দুশ্চিন্তার দিন শেষ। এসে গেল গুগলের আরেক ম্যাজিক “জি-বোর্ড”।

  • এরপর ADD KEYBOAD-এ ক্লিক করুন।

টাইপিংয়ে যাদের বিরক্তি তাদের দুশ্চিন্তার দিন শেষ। এসে গেল গুগলের আরেক ম্যাজিক “জি-বোর্ড”।

  • Suggested languages থেকে Bangla (Bangladesh) নির্বাচন করুন।

টাইপিংয়ে যাদের বিরক্তি তাদের দুশ্চিন্তার দিন শেষ। এসে গেল গুগলের আরেক ম্যাজিক “জি-বোর্ড”।

  • এরপর ADD-এ প্রেস করুন।

টাইপিংয়ে যাদের বিরক্তি তাদের দুশ্চিন্তার দিন শেষ। এসে গেল গুগলের আরেক ম্যাজিক “জি-বোর্ড”।

  • দেখবেন Keyboad Language-এ Bangla (Bangladesh) নামে একটি কি-বোর্ড এ্যাড হয়েছে। এবার বাংলার জন্য Bangla (Bangladesh) নির্বাচন করুন।

টাইপিংয়ে যাদের বিরক্তি তাদের দুশ্চিন্তার দিন শেষ। এসে গেল গুগলের আরেক ম্যাজিক “জি-বোর্ড”।

আবারও পূর্বের মতো  কি-বোর্ডের উপরের ডান পাশে একটি রেকর্ডার আইকন দেখতে পাবেন। রেকর্ডার আইকনে ক্লিক করুন। যখন স্ক্রিনে Speak Now দেখতে পাবেন তখন ফোনটি আপনার মুখের কাছে নিয়ে বলুন কেমন আছেন সাথে সাথে টাইপ হয়ে যাবে।

কি-বোর্ডের উপরের ডান পাশে একটি রেকর্ডার আইকন দেখতে পাবেন। রেকর্ডার আইকনে ক্লিক করুন। যখন স্ক্রিনে Speak Now দেখতে পাবেন তখন ফোনটি আপনার মুখের কাছে নিয়ে বলুন Hello সাথে সাথে টাইপ হয়ে যাবে।

ও হ্যা আপনি কাউকে মেইল দিতে চাইলেও ভয়েস টাইপিংয়ের মাধ্যমে মেইল করতে পারবেন। সো নো টাইপিং নো ঝামেলা।

ধন্যবাদ।