আসসালামু আলাইকুম, কেমন আছেন সবাই? আশা করি সবাই ভাল আছেন, আমিও আপনাদের দোয়ায় এবং আল্লাহর অশেষ রহমতে অনেক ভাল আছি। টেকলার্ন বিডির পক্ষ থেকে আপনাদের সবাইকে আবারও জানাই অভিনন্দন। আজ আমি আপনাদের সাথে কম্পিউটার সিকিউরিটির অ্যাডওয়্যার, অটোরান,বোটনেট,কার্নিভোর এর কিছু বিষয় নিয়ে আলোচনা করব।
পরিবারে ব্যবহার হওয়া হোম কম্পিউটার থেকে শুরু করে দেশের বৃহত্তম করপোরেশনের ডেস্কটপ কম্পিউটার পর্যন্ত সব কম্পিউটারই বর্তমানে নিরাপত্তা সংশ্লিষ্ট ঝুঁকিতে রয়েছে। এই ঝুঁকির মাত্রা দিন দিন এমনভাবে বেড়েছে যে প্রযুক্তিবিশ্বে এখন সবচেয়ে আলোচিত বিষয় হয়ে উঠেছে কম্পিউটার সিকিউরিটি তথা নিরাপত্তা। এর ফলে আমরা প্রায় সময় সিকিউরিটি সংশ্লিষ্ট কিছু কিছু সাধারণ টার্মের মুখোমুখি হই যেগুলো সম্পর্কে ন্যূনতম ধারণা বেশিরভাগ ব্যবহারকারীই নেই। এ সত্য উপলব্ধিতে এবার উপস্থাপন করা হয়েছে কম্পিউটারের নিরাপত্তা সংশ্লিষ্ট বিষয়ের ওপর বহুল পরিচিত বেশ কিছু টার্মের ব্যাখ্যা।

অ্যাডওয়্যার

অ্যাডওয়্যার প্রোগ্রাম হলো সেগুলো যেগুলো ব্যবহারের সময় বিজ্ঞাপনের কনটেন্ট ডাউনলোড ও ডিসপ্লে করে। বাস্তবতা হলো, অ্যাডগুলো নিজেরাই বিরক্তিকর, কিন্তু মূল বিপদ হলো অ্যাডয়্যারগুলো বিরক্তিকর পপ-আপ গ্রাফিক্স এবং অডিও ডাউনলোড করা ছাড়া এরচেয়ে বেশি কিছু ডাউনলোড করে। হতে পারে এই অ্যাডওয়্যারগুলো ইচ্ছাকৃতভাবে বা অন্যের ক্ষতি করে নিজের স্বার্থ হাসিলের উদ্দেশ্যে আপনার কমপিউটারে ডাউনলোড করতে পারে ম্যালওয়্যার।

অটোরান

যখন আপনার কমপিউটারের সিডি বা ডিভিডি ড্রাইভে সিডি বা ডিভিডি ঢোকানো হবে, তখন অপারেটিং সিস্টেম ডিস্ক স্পিন করবে এবং সরাসরি কোড রিড করবে। অটোরানের উদ্দেশ্য খুবই খারাপ। এটি ডিস্কে রেখে দিতে পারে বিদ্বেষপরায়ণ কোড, যা আপনার কমপিউটারকে সংক্রমিত করতে পারে আপনাকে প্রতিরোধের কোনো সুযোগ না দিয়ে। অটোরান ফিচারকে Disable করে এ ধরনের হামলা থেকে সিস্টেমকে রক্ষা করতে পারবেন।

বোটনেট

বোটনেট হলো ইন্টারনেট সংযোগসহ কিছু কম্প্রোমাইজ কমপিউটারের সংগ্রহ, যেগুলো নিয়ন্ত্রিত হয় অনাকাঙিক্ষত থার্ড পার্টির মাধ্যমে। এর ফলে ভেঙে পড়ে নিরাপত্তা বেষ্টনী এবং সমশ্রেণীভুক্ত কিছু অ্যাকশন কার্যকর করার জন্য ব্যবহার হয়। এখানে পাসওয়ার্ড ক্র্যাক করার জন্য ব্যবহার হয় সম্মিলিত কমপিউটিং পাওয়ার অথবা কার্যকর করে অন্য ধরনের টাস্ক। যেসব সিস্টেম বোটনেটকে অন্তর্ভুক্ত করে সেগুলোকে সাধারণত রেফার করা হয় জুমবাই (Zombie) কমপিউটার হিসেবে। কেননা এগুলো নির্বোধের মতো কাজ করে।

কার্নিভোর

কার্নিভোর হলো এমন সিস্টেম, যা ফেডারেল ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন তথা এফবিআই ই-মেইল এবং ইলেকট্রনিক কমিউনিকেশন মনিটর করার জন্য ডিজাইন করে। এতে ব্যবহার হয় কাস্টোমাইজেবল সিস্নফার প্যাকেট, যা টার্গেট ইউজারের সব ইন্টারনেট ট্রাফিক মনিটর করতে পারে। কার্নিভোর বাস্তবায়ন করা হয় ১৯৯৭ এবং ব্যাপকভাবে সমালোচিত হওয়ায় তা প্রতিস্থাপিত হয় আরো উন্নত বাণিজ্যিক সফটওয়্যার দিয়ে। এটি মাইক্রোসফট উইন্ডোজভিত্তিক ওয়ার্ক স্টেশন। এতে সমন্বিত রয়েছে এক প্যাকেট সিস্নফারিং সফটওয়্যার এবং রিমোভাল ডিস্ক ড্রাইভ।
ধন্যবাদ সবাইকে টিপসটি পরার জন্য, আশা করি টিপসটি সবার উপকারে আসবে এবং পছন্দ হবে আর টিপসটি পছন্দ হলে বেশি করে শেয়ার, লাইক, কমেন্ট করতে ভুলবেন না।