টেকলার্নবিডি-র পক্ষ থেকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়ে শুরু করছি আজকের আয়োজন, আশা করি সবাই ভালো আছেন। বর্তমান যুগ হচ্ছে কম্পিউটার এর যুগ,ব্যাক্তিগত কাজ বা অফিসের কাজ যাই বলি না কেন কম্পিউটার ছাড়া কল্পনাই করা যায় না। তবে আপনার কম্পিউটার যদি যথাযথ কাজ না করে তবে আপনার কাজে ব্যাঘাত ঘটবে, তাই এর পারফরমেন্স ঠিক রাখার জন্য কিছু কৌশল অনুসরণ করতে হবে। টেকলার্নবিডি-র পক্ষ থেকে কিছু গুরুত্ব পূর্ণ কৌশল নিয়ে আলোচনা করা হলো

১। এন্টিভাইরাস সফটওয়্যার ইনস্টল করুন এবং আপডেট রাখুনঃ

 

সাধারণ কম্পিউটার জ্ঞান থাকলেই আপনি আপনার কম্পিউটার কে Malware-malicious software থেকে রক্ষা করতে পারবেন না। হ্যাকাররা বিভিন্ন ভাবে আপনার কম্পিউটার এটাক করতে পারে। Anti-malware দিয়ে আপনি এ সমস্যা থেকে পরিত্রাণ পেতে পারেন। এন্টিভাইরাস সফটওয়্যার ইনস্টল করুন এবং আপডেট রাখুন

 

২। আপনার WINDOWS কে Up to Date রাখুনঃ

হ্যাকার রা সবসময় নতুন নতুন উপায় বের করে আপনার Windows কে corrupt করার জন্য। তার জন্য Microsoft প্রতি মঙ্গলবার ছোট ছোট Operating system update রিলিজ দেয় এবং বড় update দেয় বছরে একবার অথবা দুইবার। এর জন্য আপনাকে খুব কষ্ট করতে হবে না তবে ইন্টারনেট সংযোগ থাকতে হবে। আপনার  Operating system নিজে নিজেই update নিয়ে নিবে। Operating system update হওয়া শুরু হলে তা বন্ধ করা যাবে না। তবে আপনি যদি নতুন update পেতে ইচ্ছুক হয়ে থাকেন তবে Start Menu হতে Windows update খুজে check for updates এ ক্লিক করুন।

৩। Windows Firewall চালু রাখুনঃ

 

Windows এর বিল্ট-ইন Firewall সিস্টেম আছে যা আপনার কম্পিউটার কে অনাকাঙ্ক্ষিত আক্রমণ থেকে রক্ষা করে থাকে তাই Windows Firewall চালু রাখুন এবং চালু না থাকলে start menu এর search box এ “check firewall” লিখে Firewall স্ট্যাটাস চেক করুন।

৪। ওয়েব ব্রাউজার এর Latest version ব্যাবহার করুনঃ

 

ওয়েব ব্রাউজার হচ্ছে প্রধান এপ্লিকেশন গুলোর মধ্যে অন্যতম। হ্যাকার রা এসব ব্রাউজার এর নিয়ন্ত্রন খুব সহযেই নিতে পারে এবং এবং কিছু BOGUS web sites তৈরি করতে পারে। ফলে হ্যাকার রা আপনার সব কিছু মনিটরিং করতে পারে এমনকি আপনি কখন কি কি টাইপ করছেন তাও । তাই আপনি যদি ওয়েব ব্রাউজার এর Latest version ব্যাবহার করেন তবে এসব ঝামেলায় পরবেন না।

৫। “Fishing emails” এড়িয়ে চলুনঃ

মাঝে মাঝে আপনার কাছে অপরিচত কিছু মেইল আসতে পারে শুধু তাই না এসব মেইল এ অনেক আকর্ষণ ও থাকতে পারে কিন্তু ভূল করেও এসব মেইল এ ক্লিক করে পড়তে যাবেন না। যত দ্রুত সম্ভব এসব মেইল ডিলিট করে দিবেন।

৬। Windows Malicious Software Removal Tool ব্যাবহার করতে পারেনঃ

আপনি যদি মনে করেন আপনার Computer “Malicious Software” দ্বারা আক্রান্ত এবং Anti-malware তা ডিটেক্ট করতে পারছে না তখন “Microsoft Malicious software removal tool ব্যাবহার করে malware ডিলিট করুন। এ সফটওয়্যার টি আপনি মাইক্রোসফট এর “windows download center” এ পাবেন।

 

 

আশা করি পোষ্ট টি সবার ভাল লেগেছে।

সবাই কে ধন্যবাদ।