techlearnbd এর পক্ষ থেকে আপনাদের সবাইকে আবারও অভিনন্দন জানিয়ে শুরু করছি। কেমন আছেন সবাই?

ইমেইল আদান প্রদানের কাজটা বর্তমানে অনেকেই স্মার্টফোনের মাধ্যমেই করে থাকেন। বিভিন্ন প্রয়োজনে একাধিক ইমেইলও ব্যবহার করে থাকেন অনেকে। আর তাই আপনাদের জন্য এবারের বিশেষ আয়োজন। তো চলুন জানা যাক ই-মেইলের জন্য সেরা কিছু এ্যাপ্স সম্পর্কে।

১) জি-মেইল (Gmail) :

ই-মেইল এ্যাপ্স হিসেবে জি-মেইল বহুল ব্যবহৃত একটি এ্যাপ্স। এর জনপ্রিয়তাও অনেক। বর্তমানে এ্যানড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেমে ডিফল্ট এ্যাপ্স হিসেবেই এই এ্যাপ্সটি থাকে। আপনি ওয়েব ব্রাউজারে যেসকল সুবিধা পাবেন তার সবটুকুই পাবেন এই এ্যাপ্সটিতে। এর অন্যতম সুবিধা হচ্ছে এতে আপনি আউটলুক, ইয়াহুসহ অন্যান্য ইমেইলও কনফিগার করতে পারবেন। এ্যাপ্সটি বিনামূল্যে ডাউনলোড করতে এই লিংকে ক্লিক করুন।

২) এয়ার মেইল (AirMail) :

এয়ার মেইলের একটি সীমাবদ্ধতা আছে আর তা হলো এটি শুধুমাত্র ম্যাক ও আইওএস এর জন্য তৈরী করা হয়েছে। তাই বলে এর জনপ্রিয়তাও কম নয়। এর অনেকগুলো সুবিধার মধ্যে পিডিএফ ভিউ সুবিধাও অন্যতম। আই.টিউন্স থেকে ডাউনলোড করা যাবে এই এ্যাপ্সটি। তবে এটি বিনামূল্যে পাবেন না। এর জন্য খরচ করতে হবে আপনাকে প্রায় ৪.৯৯ ডলার।

৩) ব্লু মেইল (Blue Mail) :

একাধিক মেইল ব্যবহারের সুবিধার জন্য ব্লুমেইলের জনপ্রিয়তাও অনেক। আপনি হোম স্ক্রিন থেকেও মেইল চেক করতে পারবেন এর উইজেট সুবিধা ব্যবহার করে। তাছাড়া এতে রয়েছে বিভিন্ন মুড। বিশেষ করে রাতে ব্যবহারের জন্য আপনি ব্যবহার করতে পারেন নাইট মুড। তবে চিন্তা নেই এটি ব্যবহার করতে আপনাকে কোন খরচ করতে হবে না। বিনামুল্যেই এটি ডাউনলোড করা যাবে। ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন।

৪) ডিসপ্যাচ (Dispatch) :

আইওএস ব্যবহারকারীদের জন্য অন্যতম একটি ইমেইল এ্যাপ্স হলো ডিসপ্যাচ। এর অন্যতম সুবিধা হচ্ছে ইনবক্সে আসা মেইলগুলো এভারনোটের মতো টুডু এ্যাপে অটোমেটিক সিনক্রোনাইজ্ড হয়। অবশ্য এর একটি সীমাবদ্ধতাও আছে আর তা হলো আইএমএপি সুবিধা ব্যবহার করা গেলেও পপ আপ সুবিধা ব্যবহার করা যায় না। এটি ব্যবহার করতে হলে আপনাকে গুনতে হবে প্রায় ৬.৯৯ ডলার।

৫) মাই মেইল (My Mail) :

“মাই মেইল“ সেবার নিজস্ব এ্যাপ্স হচ্ছে মাই মেইল। এটিও একটি জনপ্রিয় একটি ইমেইল এ্যাপ্স। এর রেটিং হচ্ছে ৪.৫ যা দশ লাখেরও বেশি বার ডাউনলোড করা হয়েছে। এটি ব্যবহার করা অনেক সহজ। এতে জিমেইল, ইয়াহু, আউটলুক, এওএল, আইএমএপিসহ প্রায় সব ধরনের ইমেইল সেবা ব্যবহার করতে পারবেন। এ্যাপ্সটি ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন।

৬) নাইন (Nine) :

ইমেইলের নিরাপত্তার দিক দিয়ে যে এ্যাপ্সটির নাম আগে আসে তা হলো নাইন। এটি ব্যবহারকারীদের নিরাপত্তার ব্যাপারে সর্বাধিক গুরুত্ব দিয়ে থাকে। কেবলমাত্র মেইল সার্ভারের সাথে যুক্ত থাকা ব্যবহারকারীদের মেইল সেবা দিয়ে থাকে জনপ্রিয় এই এ্যাপটি। ৪.৫ রেটিংস প্রাপ্ত এই এ্যাপটি ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন।

৭) কে-৯ মেইল (K-9 Mail) :

বেশ পুরনো হলেও কে-৯ মেইল এ্যাপ্সটির ইউজার ইন্টারফেস সহজ ও সুন্দর। এ্যাপ্সটি ওপেন সোর্স হওয়ায় যে কোন ডেভেলপার চাইলেই এটি ডেভেলপ করতে পারবেন। সব ধরনের ইমেইল কনফিগার করা যায় এই এ্যাপ্সটিতে। এর ওজন মাত্র ৫.৫ এমবি। এ্যাপ্সটি প্লে-স্টোর থেকে প্রায় ৫০ লাখেরও বেশি বার ডাউনলোড করা হয়েছে। ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন।

তো থাকুন আমাদের সাথে আর উপভোগ করুন টেকনোলজির সর্বশেষ সংবাদ।

ধন্যবাদ।